বাঁশখালী টাইমস সম্পাদক আবু ওবাইদা আরাফাতের জন্মদিন আজ

আরকানুল ইসলাম:

বাঁশখালী টাইমস সম্পাদক আবু ওবাইদা আরাফাতের জন্মদিন আজ। জন্মদিনে অনেক অনেক শুভ কামনা রইল। শুভ হোক জন্মদিন।

খুব কাছের বলেই কী দিয়ে শুরু করব বুঝে উঠতে পারছি না। তবে জন্মদিনে একটা কথা বলতে চাই, আজকাল নিজের খেয়ে বনের মোষ তাড়ানোর লোকের খুবই অভাব! সবাই খুব হিসেব করে কদম ফেলে। তুমি যাদের জন্য কাজ করছো তারাই তোমার পিছনে কুৎসা রটাতে ব্যস্ত!
যাদের তুমি খুব আপন মনে করেছো তারাই তোমার ক্ষতি করার চেষ্টা করেছে!
যাদেরকে তুমি বড়ভাইয়ের চোখে দেখেছো তারাই তোমাকে রাজনৈতিক ট্যাগ দিয়ে কোনঠাসা করার চেষ্টা করেছে, করতেছে!
তো, তুমি কার জন্য কী করবে? এখন যে পদে থেকে শুধুমাত্র বাঁশখালীর জন্য কাজ করে যাচ্ছো, সময় দিচ্ছো, শ্রম দিচ্ছো, দিনশেষে তোমার লাভটা কী? দু’টাকা কি ইনকাম হয়? নাকি এমবি খরচটাই তোমার পকেট থেকে গচ্চা যায়! তারপরও একটা মানুষের শোকরিয়া কি তুমি দেখেছো? উল্টো দেখো, তাদের অভিযোগের অন্ত নেই, যেনবা তুমি তাদের অফিসের কর্মচারী!
সেজন্যই বলেছি, নিজের খেয়ে বনের মোষ তাড়াচ্ছো। যদিওবা সেটা একমাত্র বাঁশখালীকে ভালোবেসে, বাঁশখালীর মানুষকে ভালোবেসে।

তোমার একটা জিনিস খুব ভালো লাগে, পরামর্শ নিয়ে কাজ করো তুমি। সম্ভবত আমার কাছেই তোমার যেকোনও আইডিয়া প্রথম ফাঁস করে পরামর্শ চাও, সম্ভবত। এটা আমার ভালো লাগে। একটা সুপরামর্শ সবসময় একজন ব্যক্তির কাজকে এগিয়ে রাখে।

আরেকটা ব্যাপারে বলতে চাই, তোমার আবেগকে আরেকটু নিয়ন্ত্রণে আনো। মন চাইলেই হুট করে যে কোনও কাজে জড়িয়ে পড়ো না। অাবেগকে জায়গা দিতে দিয়ে অনেক লস হতে দেখেছি তোমার। সময়টা মেইনটেইন করার চেষ্টা করো।

আরাফাতের জন্ম বাঁশখালী উপজেলার বৈলছড়ি ইউনিয়নের চেচুরিয়া গ্রামে। এক সম্ভ্রান্ত পরিবার তাদের। ছোটবেলা থেকেই খুব মেধাবী ও বিচক্ষণ। লেখালেখির প্রতি আগ্রহ সেই ছোটবেলা থেকেই। তারই প্রেক্ষিতে লিখেছেন অজস্র ছড়া-কবিতা-গল্প। এক সময় চট্টগ্রামের দৈনিকগুলোতে তার লেখা নিয়মিতই প্রকাশ হতো। জাতীয় দৈনিকগুলোতেও তার সমান অংশগ্রহণ দেখতে পাই।

মূলত সে একজন দক্ষ সংগঠক। বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সমাজসেবামূলক সংগঠনে তার একনিষ্ঠ অংশগ্রহণ দেখি। সে বাঁশখালী সমিতির তথ্যবিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্বে ছিল একসময়। এছাড়া রোটারি ক্লাবসহ আরো অনেক সংগঠনের সাথে জড়িত।

লেখালেখির প্রতি আগ্রহ ও প্রেম আছে বলেই বিভিন্ন সময় বাঁশখালীর মাসিক পত্রিকার সম্পাদক-নির্বাহী সম্পাদক পদে আমরা তাকে দেখেছি।

তার সম্পাদিত আলোচিত লিটলম্যাগ ‘নক্ষত্র’। সে “বাঁশখালী সংবাদ” এর নির্বাহী সম্পাদক। বর্তমানে বাঁশখালীর জনপ্রিয় অনলাইন পোর্টাল “বাঁশখালী টাইমস” এর গুরুত্বপূর্ণ শীর্ষপদ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন নিষ্ঠার সাথে। সে বাঁশখালী সাহিত্য পরিষদের সদস্য সচিব হিসেবে আছেন বর্তমানে। গ্রন্থ-আলোচক হিসেবে তার আলাদা পরিচিতি রয়েছে।

জন্মদিনে কী শুভেচ্ছা জানাবো, উপদেশ দিতে দিতেই যেন লেখাটা শেষের দিকে চলে এলো! লেখালেখিতে আরও সময় দাও। তোমার হাতের যে যোগ্যতা, সেটা অনেকেরই নেই। তোমার গদ্যের হাত বরাবরই দারুণ, চর্চাটা অব্যাহত রাখো।

আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম থেকে এমবিএ শেষ করা এই সদা হাস্যোজ্জ্বল তরুণ লেখক, সম্পাদক ও সমাজকর্মীর জন্য আন্তরিক শুভেচ্ছা ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি। শুভ হোক আগামীর পথচলা।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.