অপুর ব্যাপারে শাকিবের অভিযোগ পাত্তা পেল না পুলিশের কাছে!

শাকিব খান স্ত্রী অপু বিশ্বাসের বিরুদ্ধে ছেলে আব্রাম খান জয়কে তালাবন্দি করে রাখার অভিযোগ তুলেছেন। এ অভিযোগে তিনি শুক্রবার রাতে গুলশান থানায় যোগাযোগও করেন। তবে তার অহ্বানে সাড়া দেয়নি থানা পুলিশ।

শনিবার দুপুরে গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক বলেন, ‘শাকিব খান বলছিলেন- বাচ্চাটা উদ্ধার করে তাকে দেওয়ার জন্য। কিন্তু এটার আইনগতভাবে পুলিশের কোনো ক্ষমতা নেই। বাচ্চা তো ছোট, সাধারণত সে মায়ের কাছে থাকবে। এখন উনি যদি বাচ্চাকে নিজের কাছে রাখতে চান, তাহলে আদালতের অনুমতি লাগবে।’

তিনি বলেন, ‘সাধারণত ছোট শিশু মায়ের কাছেই থাকে। সন্তানকে বাড়ির গৃহপরিচালিকার কাছে রেখে মা বাইরে যেতেই পারেন। এটা খুবই স্বাভাবিক বিষয়।’

ওসি আরও বলেন, ‘সন্তান বাবা না মায়ের কাছে থাকবে সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার এখতিয়ার পুলিশের নেই। এজন্য তাকে আদালতে যেতে হবে এবং অনুমতি নিয়ে আসতে। সেক্ষেত্রেও পুলিশ সন্তানকে আদালতের কাছে হস্তান্তর করবে।’

জানা গেছে, শাকিব নিজে থানায় যাননি। তার বদলে থানায় গিয়েছিলেন তার চাচাতো ভাই মনির। এমনকি অপু বিশ্বাসের বাসায়ও সন্তানকে আনতে তিনি তার এক সহকারীকে পাঠিয়েছিলেন। সহকারী তাকে এসে বলেন, বাসায় তালা দেয়া।

অবশ্য এসব বক্তব্যের সত্যতা যাচাইয়ে শাকিব খানকে শনিবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত বেশ কয়েকবার কল, মেসেজ এবং এমনকি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ব্যবহার করেও পাওয়া যায়নি।

শুক্রবার রাত ৮টার দিকে অপু বিশ্বাসের গুলশানের নিকেতন বাসায় যান শাকিব খান। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, ছেলে আব্রামকে ঘরের ভেতরে রেখে বাইরে থেকে তালা দিয়ে কলকাতায় গেছেন অপু বিশ্বাস। পরে তিনি পুলিশের সহযোগিতা চান।

শাকিব খানের অভিযোগ অস্বীকার করে অবশ্য অপু বিশ্বাস বলেন, ‘আমি অসুস্থতার কারণে কলকাতায় এসেছে। বাসায় বাইরে থেকে নয়, ভিতর থেকে তালা দেয়া ছিল।’

অপু বিশ্বাস ২০০৪ সালে আমজাদ হোসেনের ‘কাল সকালে’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন। এরপর ২০০৬ সালে পরিচালক এফ আই মানিক পরিচালিত ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিতে নায়িকা হিসেবে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেন তিনি।

শাকিব-অপু ২০০৬ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত একাধারে ৭০টির মতো ছবিতে জুটি বাঁধেন। একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে একসময় পরস্পর প্রেমের বাঁধনে জড়িয়ে যান। এরপর ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন শাকিব-অপু। তাদের একমাত্র সন্তান আব্রাম খান জয়।

পরিবর্তন.কম

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.