কমল স্মৃতি সংসদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

বাঁশখালী কমল স্মৃতি সংসদের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে অালোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সংসদের অাহবায়ক ওসমান গণি মুজাহিদের সভাপতিত্বে সিনিয়র যুগ্ম অাহবায়ক বেলাল মাহমুদের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক, বাঁশখালী পৌরসভার সাবেক মেয়র আলহাজ্ব কামরুল ইসলাম হোসাইনী, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্হিত ছিলেন বাঁশখালী উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক, ৪নং বাহারছড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মাষ্টার লোকমান, বাঁশখালী উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব, ৬ নং বৈলছড়ি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ইব্রাহিম খলিল, বাঁশখালী পৌর বিএনপির সদস্য সচিব অাতিকুর রহমান ফারুকী, বাঁশখালী উপজেলা যুব দলের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ বখতিয়ার, আলী হায়দার রণি, পৌরসভা যুবদলের সিনিয়র সহ সভাপতি শহিদুল ইসলাম চৌধুরী,সাধারণ সম্পাদক অাবু সালেহ মনি, সংসদের উপদেষ্টা অাতা-উর-রহমান কাইসার, মেম্বার ওসমান গণিসহ বাঁশখালী উপজেলা ও পৌরসভা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলের সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে অালহাজ্ব কামরুল ইসলাম হোসাইনী বলেন, বর্তমান বাংলাদেশ কঠিন সময় পার করছে, চারদিকে অনাচার অবিচার, এই অবস্থা থেকে উত্তরণে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের অাদর্শ অনুসরণের বিকল্প নেই।

সভাপতির বক্তব্যে সংসদের আহ্বায়ক ওসমান গণি মোজাহিদ বলেন, বাঁশখালীর জাতীয়তাবাদী তরুণ মেধাবীদের ঐক্যমঞ্চ এ সংসদ। অতীতে যেভাবে অর্থনীতি ও সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজ করেছিলাম, ভবিষ্যতেও একই ধারা অব্যাহত থাকবে। সেই সাথে সকল ধরনের অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে সোচ্ছার ছিল সংসদ, ঠিক তার দ্বিগুণ শক্তিতে সামনের দিন গুলোতে অন্যায়, অবিচার, অপরাধের বিরুদ্ধে কাজ করে যাবে সংসদ।
সিনিয়র আহ্বায়ক বেলাল মাহমুদ বলেন, বাঁশখালী কমল স্মৃতি সংসদ বাঁশখালী জাতীয়তাবাদের শক্তি, সর্বস্তরের জনতার মনোবল। সংসদের সকল সদস্য শহিদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ১৯ দফা বাস্তবায়নে বাঁশখালী প্রতিটি ইউনিয়নে কাজ করে যাচ্ছে, ইনশআল্লাহ আগামীতে প্রতিটি ওয়ার্ডে কাজ করে যাবে।

বাঁশখালী কমল স্মৃতি সংসদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন সৌদি আরব প্রতিনিধি মোহাম্মদ হালিম, সংসদের যুগ্ম আহ্বায়ক জালাল উদ্দীন, নুরুল মোস্তফা সিকদার, মিজানুর রহমান, আজিম উদ্দীন, সৈয়দ নুরুল আবচার, মোহাম্মদ নুর উদ্দীন, বাসু মজুমদার, জালাল উদ্দীন মিসবাহ, সদস্য মোহাম্মদ মারুফ, নজরুল ইসলাম বিদ্রোহী, মোহাম্মদ আরিফ, মোহাম্মদ ফিরোজ প্রমুখ। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.