বিয়ের বয়স ও খ্যাতির প্যাঁচাল!

বাপ্পা আজিজুল: I have a dream or Dream from my father- হ্যাঁ দুজন আমেরিকান কৃষ্ণাঙ্গ নেতার কথা বলছি। এরকম স্বপ্ন আমরা কে না দেখি? শৈশবে মায়েরা শিয়রে বসে ঘুম পাড়িয়ে দেয় এমন অনেক স্বপ্ন দেখিয়ে। বিখ্যাত হওয়ার জন্য বা সফলতার সুকৌশল রপ্ত করতে তাই বিখ্যাত ব্যক্তিদের জীবন, কর্ম ও উক্তি নিয়ে আমাদের মাতামাতির অন্ত নেই। বিখ্যাতদের জীবনের এমনই এক অধ্যায় নিয়ে আমরা আজ জানার চেষ্টা করব। আমাদের সমাজ প্রায়ই যুবকদের বিয়ের ব্যাপারে উষ্মা প্রকাশ করে। সবে পাঠ চুকিয়েছ, নিজের পায়ে দাঁড়াও, প্রতিষ্ঠিত হও ইত্যাদি বাণী চিরন্তনী আমরা নিত্যই শুনি। বিয়ে বিখ্যাত হওয়ার অন্তরায় কিনা ? এমন প্রশ্ন নিয়ে আমরা হাজির হয়েছিলাম বিখ্যাত রুই-কাতলা, রাঘব বোয়ালদের মজলিশে। শোনা গেল মিশ্র প্রতিক্রিয়া। হিসেব কষে দেখা গেল খ্যাতনামাদের বিয়ের গড় বয়স ২২.৬। সর্বনাশ! জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সেশনজটে নাকাল হয়ে আমাদের যুবসমাজের ফেমাস হওয়ার চান্স পাস করার আগেই শেষ। গড় বয়স ২২ ধরে রাখার জন্য যুবক তোমাকে হয় বিপ্লবী হতে হবে নয় জমিদার। ঠিকই বলছি, সদ্য প্রয়াত ক্যাস্ত্রো ও রবীন্দ্রনাথ বাইশেই বিয়ে সেরেছিলেন। তবে এ তালিকায় এক কাঠি সরেস ছিলেন মহাত্মা গান্ধী, আনলাকি থার্টিনে সাত পাকে বেঁধেছিলেন কস্তুরিবাইকে। আরেক বিপ্লবী মাও সেতুং বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন চৌদ্দে। কম যাননি জিন্নাহ সাহেব ষোলতেই গোল দিয়েছিলেন তিনি। ভারত, পাকিস্তানের জনকের দেখানো পথেই দীক্ষা নিয়েছেন বাংলাদেশের জনক। সুকান্তের রক্ত গরম করা আঠারোই বেছে নিয়েছিলেন মালা বদলের জন্য। তার পরে তো শুধুই ইতিহাস। এই আঠারোতেই পরিবারের পছন্দ করা পাত্রীকে বিয়ে না করে পালিয়ে এসে শেষমেশ পঁচিশ পার হতে পারেন নি কিংবদন্তী মাদিবা অর্থাৎ ম্যান্ডেলা। পচিশে পটে গিয়েছেন পন্ডিত কার্ল মার্ক্স। বিশ্বমানবতার কাণ্ডারি মুহাম্মদ (সা) এর পঁচিশে পরিণয় কারও অজানা নয়। লেট টুয়েন্টিজের দলে আছেন বিপ্লবী চে গুয়েভারা ও সিপাহী বিপ্লবের নায়ক মেজর জিয়া। ত্রিশ যাদের পেরুলো তারা হতাশ হয়ে বিষ খাবেন না । Change we need খ্যাত সাবেক আমেরিকান প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বিয়ের জামা গায়ে তুলেছিলেন মাত্র একত্রিশে, আরেকটু বেশি বয়স হলে সামনে পেয়ে যাবেন বিংশ শতাব্দীর থিওডেমোক্রেসির প্রবক্তা পাকিস্তানের আবুল আ’লা মওদূদীকে। তিনি পাণিগ্রহণ করেছিলেন চৌত্রিশে। তবে মুদ্রার উল্টোপিঠও কম চকচকে নয়। অনেক সিংহপুরুষও বিয়ের যাত্রা না করেই মহাযাত্রা করেছেন। তা খিষ্ট্রীয় সভ্যতার প্রাণপুরুষ যীশু থেকে শুরু করে ভিঞ্চি, নিউটন, ভলতেয়ার, দানবীর মুহসিন কিম্বা হালের রতন টাটা বা এপিজে আব্দুল কালাম। শুনেছি মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক আতাউল গণি ওসমানিও নাকি এ দলের সৈনিক। জগতে যা কিছু চিরকল্যাণকর…। হ্যাঁ, নারীরাই বা পিছিয়ে কই? মহিয়সী নারী রাবেয়া বসরী, মাদার তেরেসা বা ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল মানবসেবায় ব্রত হয়ে পুরুষদের দেয়নি বেল। দেশসেবায় নিবেদিত রানি এলিজাবেথ-১ ও সুন্দরী কন্ডোলিজা রাইস, সাহারা খাতুনও কিন্তু বিখ্যাত।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.