শপথ পাঠ করলেন নতুন মন্ত্রীরা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ শপথগ্রহণ করলেন নতুন মন্ত্রিসভার ৪৭ সদস্য। তাদেরকে শপথবাক্য পাঠ করান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শপথ নেয়ার পর, পূর্ণ মন্ত্রিরা শপথ নেন। এরপর প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীরা শপথবাক্য পাঠ করেন। 

এর আগে সোমবার দুপুর থেকেই, শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বঙ্গভবনে আসতে শুরু করেন নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যরা। প্রায় এক হাজার অতিথি শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দেন। উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকরা। বিকেল ৩টা ২০ মিনিটের দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শপথ নিতে বঙ্গভবনের দরবার হলে উপস্থিত হন। এরপর ৩টা ৩৫ মিনিটে উপস্থিত হন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। শপথের মধ্য দিয়ে মন্ত্রিসভার সদস্যরা তাদের দায়িত্ব পালন শুরু করবেন।

এবারের মন্ত্রিসভায় ছিল দারুণ চমক। মন্ত্রিসভার ৪৭ জন সদস্যের মধ্যে ৩১ জনই নতুন মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন। এদের মধ্যে ২৭ জনই প্রথমবার মন্ত্রী হয়েছেন। আর প্রতিমন্ত্রী থেকে পূর্ণমন্ত্রীর দায়িত্ব পাচ্ছেন পাঁচজন। মন্ত্রিসভায় সব মিলিয়ে এবার ২৪ জন মন্ত্রী, ১৯ জন প্রতিমন্ত্রী এবং তিনজন উপমন্ত্রী থাকছেন।

৪৭ জন নিয়ে এবার গঠিত হলো নতুন মন্ত্রিসভা। ২৪ জন মন্ত্রীর মধ্যে, আ ক ম মোজাম্মেল হক, ওবায়দুল কাদের, আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, আনিসুল হক, স্থপতি ইয়াফেস ওসমান এবং মোস্তফা জব্বার আগের দায়িত্বেই থাকছেন। আর পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল পাচ্ছেন অর্থ মন্ত্রণালয়। অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের পূর্ণ দায়িত্ব পাচ্ছেন।

প্রতিমন্ত্রী থেকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পূর্ণমন্ত্রী হচ্ছেন জাহিদ মালেক। একইভাবে নুরুজ্জামান আহমেদ সমাজকল্যাণ, সাইফুজ্জামান চৌধুরী ভূমি মন্ত্রণালয় এবং বীর বাহাদুর উ শৈ সিং পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পূর্ণ দায়িত্ব পাচ্ছেন।

এর আগে, একবার খাদ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা ড. আবদুর রাজ্জাক পাচ্ছেন কৃষি মন্ত্রণালয়, বন ও পরিবেশ মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা ড. হাছান মাহমুদ পাচ্ছেন তথ্য মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা ডা. দীপু মনি পাচ্ছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এবার প্রথম মন্ত্রী হয়েছেন তাজুল ইসলাম, এ কে আব্দুল মোমেন, নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন, গোলাম দস্তগীর গাজী, সাধনচন্দ্র মজুমদার, টিপু মুনশি, শ ম রেজাউল করিম, মোহাম্মদ শাহাব উদ্দিন এবং নুরুল ইসলাম সুজন।

১৯ প্রতিমন্ত্রির মধ্যে নসরুল হামিদ, শাহরিয়ার আলম এবং জুনায়েদ আহমেদ পলক একই দায়িত্বে থাকছেন। এর আগে, একবার শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকা বেগম মুন্নুজান সুফিয়ান আবারও এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেলেন।

নতুন প্রতিমন্ত্রীরা হলেন, কামাল আহমেদ মজুমদার, ইমরান আহমদ, মোহাম্মদ জাহিদ আহসান রাসেল,  আশরাফ আলী খান খসরু, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, জাকির হোসেন, ফরহাদ হোসেন, স্বপন ভট্টাচার্য,  জাহিদ ফারুক, মুরাদ হাসান, শরীফ আহমেদ, কে এম খালিদ, ডা. এনামুর রহমান, মাহাবুব আলী এবং শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।

উপমন্ত্রীর দায়িত্ব পেতে যাওয়া তিনজনই নতুন। তারা হলেন- বেগম হাবিবুন নাহার, এ কে এম এনামুল হক শামীম এবং মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। আর প্রধানমন্ত্রীর হাতে থাকছে, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, জনপ্রশাসন, প্রতিরক্ষা, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, বিদ্যুৎ-জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ এবং মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়।

বিজ্ঞাপন

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.