লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ বাঁশখালীর গৃহবন্দি মানুষ

BanshkhaliTimes

‌তাফহীমুল ইসলাম (বাঁশখালী টাইমস)- করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে দেশজুড়ে চলছে অঘোষিত লকডাউন। প্রয়োজন ব্যতীত ঘর থেকে বের হওয়াতে আরোপ করা হয়েছে বাধ্যবাধকতা। সন্ধ্যা ৬ টার পর বের হলে নেওয়া হবে আইনানুগ ব্যবস্থা। বেড়েছে গরমের তাপমাত্রাও। সবকিছু মিলিয়ে মানুষ কার্যত গৃহবন্দি অবস্থায় দিনাতিপাত করছে। এদিকে মানুষের এই দুঃসময়ে বাঁশখালীতে হঠাৎ করে বেড়েছে বিদ্যুতের লোডশেডিং। দীর্ঘদিন অনেকটা নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুত সেবা চালু থাকলেও মানুষের এই দুঃসময়ে হঠাৎ লোডশেডিং বেড়ে যাওয়ায় গ্রাহকদের মনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। জানা যায়- গত কয়েকদিন ধরে গড়ে ২/৪ ঘন্টা বাঁশখালীর বিভিন্ন অঞ্চলে বিদ্যুত থাকছে না। এমনকি গভীর রাতে ঘুমের সময়ও মানুষ বিদ্যুত পাচ্ছে না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে গৃহবন্দি মানুষের জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। সাধারণ মানুষের প্রশ্ন- অঘোষিত লকডাউনে বাঁশখালীর অধিকাংশ অফিস, আদালত বন্ধ থাকার পরও মানুষ কেন বঞ্চিত হচ্ছে বিদ্যুতের যথাযথ সেবা থেকে? সমাগত পবিত্র রমযান মাসে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুত সেবা চায় বাঁশখালীর মানুষ।

এ প্রসঙ্গে বাঁশখালী বিদ্যুৎ অফিসের দায়িত্বশীল কর্মকর্তার সাথে মুঠোফোনে ( 01769….954)যোগাযোগ করা হলে তিনি বাঁশখালী টাইমসকে বলেন- ‘নিউজ করতে তথ্য লাগলে অফিসে আসেন, চা-পানি খেয়ে যান, আমরা ২৪ ঘন্টা বিদ্যুৎ দিচ্ছি। কাজের কারণে হয়তো কয়েক জায়গায় সমস্যা হয়েছে।’

এবিষয়ে সম্প্রতি বাঁশখালীতে কর্মরত সাংবাদিক শিব্বির আহমদ রানা তার ফেসবুক আইডিতে লিখেন- ‘আসলে বাঁশখালীতে কোন লোডশেডিং হয়না, হলেও তা বুঝার বাকী থাকেনা! কারণ বিদ্যুৎ ঘনঘন আসে!’

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.