রক্ষা পেল পৌরসভার শতবর্ষী পুকুর

BanshkhaliTimes

মুহাম্মদ মিজান বিন তাহের, বাঁশখালী টাইমস: চট্টগ্রামের বাঁশখালী পৌরসভায় এ‌কের পর এক ভরাট হ‌চ্ছে প্রাচীন সব জলাধার পুকুর। স্থানীয় ক‌তিপয় ব্যক্তির যোগসাজ‌সে এ সব কাজ ক‌রা হলেও সামনে পৌর নির্বাচন থাকায় পৌর কর্তৃপক্ষ ও প‌রি‌বেশ অ‌ধিদপ্তর কার্যত কোনো পদ‌ক্ষেপ গ্রহণ কর‌ছে না। শতবর্ষী এই পুকুর ভরাটের চেষ্টা করলে উপজেলা প্রশাসন তা বন্ধ করে দিয়েছে। ফাল্গুনী সমবায় সমিতির নামে পৌরসভা কিংবা পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র না নিয়েই পুকুরটি ভরাটের চেষ্টা করা হলে তা বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ই‌তিম‌ধ্যে ক‌য়েক‌টি পুকুর নানাভা‌বে ভরাট করার পর শতবর্ষী বাঁশখালী পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের জলদাশ পাড়ার কর্মকার প্রকাশ (কামাজ্যা পুকুর) ভরাট কাজ চললে খবর পেয়ে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তার নেতৃত্বে ও থানা পুলিশের যৌথ একটি টিম রবিবার সন্ধ্যায় ৫ টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ভরাট কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়।

স্থানীয়রা জানান, জলদাশ পাড়ার কর্মকার প্রকাশ (কামাজ্যা পুকুর)’ফাল্গুনী সমবায় সমিতি’র ব্যানারে কিছু লোক বিগত কয়েক মাস পূর্বে রাতের অন্ধকারে ভরাট শুরু করে। স্থানীয়দের বাঁধার মুখে তা বন্ধ হয়। শতবর্ষী এই পুকুরটি এলাকার মানুষ নানা কাজে ব্যবহার করে আসছে। পুকুরের ১০০ গজের মধ্যে উত্তরে জলদাশ পাড়া, দক্ষিণে শিব মন্দির এবং আশপাশের লোকজন এখান থেকে পানির চাহিদা পূরণ করতেন। দেশের প্রচলিত আইনে জলাশয় ভরাট দণ্ডনীয় অপরাধ হলেও পৌরসভা, পরিবেশ অধিদপ্তর ও উপজেলা প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই পুকুরটি ভরাট চলছিল। ইতিপূর্বে গত শুক্রবার ও শনিবার ২৪-২৫ ডিসেম্বর পুনরায় ভরাট কার্যক্রম শুরু করলে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভরাটের কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়। এ সময় পুকুর ভরাটকাজে জড়িত কাউকে ঘটনাস্থলে পাওয়া যায়নি।

রাত সাড়ে ৮ টায় ফাল্গুনী সমবায় সমিতির সদস্যরা উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তার কার্যালয়ে গিয়ে পুকুর ভরাট বন্ধ এবং আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে পুকুরে ভরাটকৃত মাটি ও বাঁশের বেড়া অন্যত্র সরিয়ে নিবে মর্মে অঙ্গীকার প্রদান করা হয়েছে বলে জানান ফাল্গুনী সমবায় সমিতির সদস্য প্রদীপ দাশ।

বাঁশখালী উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুজ্জামান চৌধুরী বলেন, পুকুর ভরাট করা সম্পূর্ণ বেআইনি। বাঁশখালী পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের জলদাশ পাড়ায় অবস্থিত একটি শতবর্ষী পুকুর ভরাট করা হচ্ছে মর্মে অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ঘটনাস্থল সরেজমিনে পরিদর্শন করা হয়। পরিদর্শনকালে দেখা যায় পুকুরের কিছু অংশ ভরাট করা হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে ভরাট কার্যক্রম বন্ধ করা হয় এবং আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে পুকুরে ভরাটকৃত মাটি ও বাঁশের বেড়া অপসারণের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, বিগত কয়েক মাস পূর্ব থেকে পৌরসভা ৫ নং ওয়ার্ডের শতবর্ষী কাজী পুকুর, পিএবি প্রধান সড়ক সংলগ্ন বাঁশখালী জলদী মিয়ার বাজার কৃষি ব্যাংকের দক্ষিণ পার্শ্বে ও ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের উত্তর পার্শ্বে শতবর্ষী পূর্ব মিয়া বাড়ীর (বার পুকুর) সহ বেশ কয়েকটি পুকুর ভরাট করার অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published.