মেসিরা ধর্মঘটের ডাক দিলো!

কাতালুনিয়ার গণভোট রুখতে পুলিশ-জনতা খণ্ডযুদ্ধে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি শতাধিক মানুষ। জখম প্রায় হাজারের কাছাকাছি। গণভোটে বাধা দেওয়ার অভিযোগে কাতালানদের ধর্মঘটের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে বার্সেলোনা খেলোয়াড়দের অনুশীলন ও ক্লাবের কার্যক্রম বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মাতৃভূমির স্বাধীনতার কথা মাথায় রেখে বিকল্প চিন্তা করতে হবে স্প্যানিশ লিগের জনপ্রিয় ক্লাব বার্সাকে।

এর আগে বার্সার লা লিগার সবশেষ ম্যাচে দর্শকশূন্য ছিল গ্যালারি। কাতালুনিয়া স্বাধীনের প্রশ্নে ঐতিহাসিক গণভোটের দিন স্টেডিয়ামের গেট বন্ধ রেখে লাস পালমাসের বিপক্ষে ম্যাচ আয়োজনের সিদ্ধান্তের কারণ জানিয়েছেন বার্সেলোনা প্রেসিডেন্ট জোসেফ মারিয়া বার্তোমেউ। তিনি জোর দিয়ে জানান, দর্শকশূন্য ক্যাম্প ন্যু সমগ্র বিশ্বের কাছে একটি বার্তা। বিশ্ব দরবারে কাতালুনিয়ার অবস্থা এবং দুর্দশার কথা তুলে ধরতে চেয়েছে বার্সা। কোনো নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি বলেও জানান বার্তোমেউ।

এদিকে, স্পেন থেকে কাতালানদের আলাদা হতে চাওয়ার দাবির সঙ্গে সংহতি জানিয়ে মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর) থেকে ক্লাব বন্ধ থাকবে বলে বার্সা তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে। শুধু তাই নয়, ক্যাম্প ন্যু’র জাদুঘরও একই ইস্যুতে বন্ধ থাকবে বলে জানা যায়।

বার্সা তাদের ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে জানায়, মঙ্গলবার থেকে মূল দলের কোনো অনুশীলন বা কার্যক্রম চলবে না। পাশাপাশি বয়সভিত্তিক কোনো দলেরও অনুশীলন হবে না।

লা লিগায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৪ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মেসি-সুয়ারেজদের বার্সা। কাতালানরা স্বাধীন হলে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চলে যেতে পারে বার্সা। রিয়াল মাদ্রিদের পর লা লিগার ইতিহাসে দ্বিতীয় সফলতম ক্লাব যদি স্প্যানিশ লিগ থেকে বেরিয়েই যায়, তাহলে এই লিগের চেহারা যে বিবর্ণ রূপ নেবে, সেটা না বললেও চলছে। ক্লাব প্রেসিডেন্ট বার্তেমেউ নিশ্চিত করে দিয়েছেন, কাতালান স্বাধীন হলে লা লিগা ছেড়ে প্রিমিয়ার লিগ অথবা ইউরোপের অন্য কোনো বড় লিগে চলে যাওয়ার ব্যাপারে আলোচনায় বসছে তারা।

কাতালুনিয়ার ২২ লাখ ৬০ হাজার জনতার নব্বই শতাংশই নাকি স্বাধীনতার পক্ষে। যা নাকচ করে দিয়ে স্পেনের ক্ষমতাসীন সরকার জানিয়ে দিয়েছে, এই গণভোটের কোনও ভিত্তি নেই। এদিকে, কাতালুনিয়া স্বাধীনতার পক্ষে স্পেনের তারকা ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকে ও বার্সেলোনার সাবেক খেলোয়াড় ও কোচ পেপ গার্দিওলা। তারা দু’জনেই ইতোমধ্যে নিজ শহরকে সমর্থন দিয়েছেন।

banglanews24

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top