মরহুম সৈয়দ আহমদুল হক (রহ.) স্মরণে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

তাফহীমুল ইসলাম, বাঁশখালী: বাঁশখালী হামেদিয়া রহিমা ফাযিল মাদরাসা ও অঙ্গ প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মরহুম আলহাজ্ব সৈয়দ আহমদুল হক (রহ.) স্মরণে এক দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বেলা এগারোটার দিকে বাঁশখালী হামেদিয়া রহিমা ফাযিল মাদরাসার হলরুমে মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা জমির উদ্দীন নেছারীর সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিলে মরহুমের স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন বাঁশখালী হামেদিয়া রহিমা ফাযিল মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা, লেখক ও গবেষক আলহাজ্ব আহমদুল ইসলাম চৌধুরী, পালেগ্রাম হাকিমিয়া শাহ সিনিয়র মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা মীর আহমদ আনসারী, জলদী হোসাইনিয়া কামিল মাদরাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা আজিজুল ইসলাম, বাঁশখালী হামেদিয়া রহিমা ফাযিল মাদরাসার আরবী প্রভাষক ও মরহুমের ছেলে মাওলানা রফিকুল হক প্রমুখ। দোয়া মাহফিলে মরহুমের পরিবারের সদস্য, স্বজন ও মাদরাসার শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মরহুম আহমদুল হক (রহঃ) স্মরণে আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, আলহাজ্ব আহমদুল হক (রহঃ) একজন পরহেজগার, ধর্মভীরু মানুষ ছিলেন। বাঁশখালী হামেদিয়া রহিমা ফাযিল মাদরাসা ও অঙ্গ প্রতিষ্ঠানসমূহ প্রতিষ্ঠার পেছনে তাঁর অবিস্মরণীয়, আন্তরিক ভূমিকা রয়েছে। মাদরাসা ও দ্বীনি শিক্ষার বিস্তারে তিনি আজীবন কাজ করে গেছেন। ধর্মীয় বিষয়াদি নিয়ে তাঁর অভূতপূর্ব পাণ্ডিত্য ছিল। বিভিন্ন সময় ধর্মের নানা বিধিবিধান নিয়ে বড় বড় আলেমদের প্রশ্ন করতে দ্বিধা করতেন না। যা তাঁর জ্ঞানপিপাসা ও ধর্মীয় সাধনার সাথে পরিচিত করিয়ে দেয়। তিনি যে আল্লাহর প্রিয় বান্দা ছিলেন, তার প্রমাণ রমজান মাসের মৃত্যু। প্রথম দিন রোজা রেখে দ্বিতীয় দিন রবের ডাকে সাড়া দেওয়াটা খুবই সৌভাগ্যের বিষয়। এমন সৌভাগ্য সকলের হয় না। আল্লাহ যেন মরহুম আহমদুল হকের ভুলত্রুটি ক্ষমা করে জান্নাতুল ফিরদাউসে সম্মানিত করেন।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.