বৈলছড়ীতে চেয়ারম্যানের মামলায় মেম্বারসহ ২ জনের মুক্তিলাভ

মুহাম্মদ মিজান বিন তাহের: বৈলছড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ সভাপতি কফিল উদ্দীনের বাড়ীতে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় আটক ৩ জনের মধ্যে আজ ২ জন জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। তারা হলেন ইউপি সদস্য দিদারুল হক ও আবুল কালাম।

উল্লেখ্য, সাঙ্গুর উপর অবস্থিত তৈলারদ্বীপ সেতুর টোল আদায় বন্ধ নিয়ে বিগত একমাস ধরে স্থানীয় সাংসদ মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী সমর্থিত ইউপি চেয়ারম্যান কফিল উদ্দিন ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক সিটি মেয়র মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরীর সমর্থিত সিএনজি-টেক্সী পরিবহন শ্রমিকদের মধ্যে দ্বন্ধ চলে আসছিল। সেই দ্বন্ধকে কেন্দ্র করে গত ২৮ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বৈলছড়ি ইউপি চেয়ারম্যানের কাচারী ঘরে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটিয়েছিল দুর্বৃত্তরা।

এ ঘটনার ৫ দিন পর চেয়ারম্যান বাদী হয়ে একই এলাকার দুই ইউপি সদস্যসহ ১৬ জনকে এজাহার নামীয় ও অজ্ঞাতনামা ২০-২৫ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে বিজ্ঞ আদালত রবিবার জামিন শুনানী শেষে ৩ জনকে জেল হাজতে প্রেরণ করলেও অপরাপর আসামীকে জামিনে মুক্তি দেন।
অবশেষে আজ ১৯ অক্টোবর বুধবার চট্টগ্রাম আদালত থেকে বৈলছড়ি ৬ নং ওয়ার্ড়ের ইউপি সদস্য দিদারুল হক ও আবুল কালামের জামিন লাভ করে।
জামিন পেয়ে বাঁশখালীর বৈলছড়ীতে আসলে এলাকার শত শত ছাত্রলীগ, যুবলীগ, আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা মিছিল সহকারে তাদেরকে ফুলের তোড়া দিয়ে বরণ করে নেন।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.