বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবসে অনলাইন সভা অনুষ্ঠিত

BanshkhaliTimes

বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে World Humanist Foundation এর উদ্যোগে গত ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ইং সন্ধ্যা ৭ টায় এক মুক্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন World Humanist Foundation এর প্রেসিডেন্ট মুশফিকা জাহান, ভাইস প্রেসিডেন্ট ইমদাদ শামীম, এক্সিকিউটিভ মেম্বার জিয়াউর রহমান, মেন্টাল হেলথ প্রজেক্ট অফিসার আফিফা মরিয়ম জয়া, ফিল্ড অফিসার রাবেয়া সুলতানা, ওয়ার্ল্ড হিউম্যানিস্ট ফাউন্ডেশনের সদস্য ভলান্টিয়ার, বাঁশখালী টাইমসের সম্পাদক আবু ওবাইদা আরাফাত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী দিলুয়ারা আক্তার ভাবনাসহ বিভিন্ন জেলার সচেতন সাধারণ নাগরিকবৃন্দ।

সভাটিতে আলোচকবৃন্দ আত্মহত্যা বিষয়ক সচেতনতা কেন জরুরী, আত্মহত্যার সম্ভাব্য কারণ কি হতে পারে, আত্মহত্যা প্রতিরোধে সাধারণের ভূমিকা কি হতে পারে তা নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচনায় অংশগ্রহণকারী সাফিয়া সুলতানা বলেন, “যশোরে একটি হাসপাতালে আত্মহত্যা চেষ্টাকারী এক শিশুকে ভর্তি হতে দেখি, যার বয়স ছিলো সাত বছর। ঘটনাটি আমাকে খুব আলোড়িত করে।” ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী দিলুয়ারা আক্তার ভাবনা জানান, “গত বছর আমাদের পরিচিত সার্কেলের একজন সিনিয়রকে বিষন্নতায় ভুগতে দেখেছি, আমরা আশঙ্কা করেছি তিনি আত্মহত্যার চিন্তা করছেন। সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নিই যে, ওনাকে আমরা কখনো একা থাকতে দিবো না। আমরা পালা করে কেউ না কেউ তাকে সময় দিতাম। বর্তমানে তিনি অনেকটা স্বাভাবিক আচরণে ফিরে এসেছে।” এছাড়া আলোচকরা একমত হন যে, আত্মহত্যার নির্দিষ্ট বয়স নেই। আগে থেকে বোঝার মতো লক্ষণ নাও থাকতে পারে। এছাড়া আত্মহত্যার কোনও নির্দিষ্ট একটা কারণ নাও থাকতে পারে। আত্মহত্যার কারণ হতে পারে আকস্মিক সিদ্ধান্ত অথবা মানসিক অসুস্থতা থেকে অথবা দীর্ঘমেয়াদী হতাশার জের হিসেবে অথবা পারিপার্শ্বিক নেতিবাচক কোনও পরিস্থিতি। আত্মহত্যা প্রতিরোধে পরিবার এবং বন্ধুদের ভূমিকার গুরুত্ব সম্পর্কেও আলোচকবৃন্দ একমত পোষণ করেন।

আলোচনা শেষে World Humanist Foundation এর সদস্যরা সকলে একাত্ম হয়ে বলেন, বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে সাধারণের আলোচনা সভা থেকে পাওয়া পরামর্শগুলো আমরা গভীরভাবে উপলব্ধির চেষ্টা করছি। আমরা বিশ্বাস করি, জীবন দক্ষতার উন্নয়ন করতে পারলে, মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষিত থাকলে আত্মহত্যার ঝুঁকি কমে। আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী জীবন দক্ষতা প্রশিক্ষণ, মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতার কাজগুলো আমরা করে যাবো। এই আমাদের অঙ্গীকার।

ওয়ার্ল্ড হিউম্যানিস্ট ফাউন্ডেশন শিশু কিশোরদের সুস্থ মানসিক বিকাশ, জীবন দক্ষতা প্রশিক্ষণ, ইতিবাচক প্যারেন্টিং, মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতা বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। সংগঠনটি ২০১৯ সালে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক দেশব্যাপী কাজ করার জন্যে অনুমোদন লাভ করে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.