বাঁশখালীতে হাতি- মানুষ দ্বন্ধ নিরসনে কর্মশালা

BanshkhaliTimes

মিজান বিন তাহের, বাঁশখালী টাইমস: হাতি-মানুষ দ্বন্ধ নিরসনে প্রয়োজন জনসচেতনতা বিষয়ক এক সচেতনমূলক কর্মশালা জলদী বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য রেঞ্জ আয়োজন করেছে। শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টায় বাঁশখালী ইকোপার্কের হল রুমে এ সভার আয়োজন করা হয়।
কর্মশালায় বক্তারা বলেন , বাংলাদেশে প্রায় ২৭০-৩৩০টি হাতি রয়েছে। বর্তমানে হাতিগুলো মহাবিপন্ন প্রজাতি হিসেবে বেঁচে আছে। বনজঙ্গল ও গাছপালা যেখানে বেশী থাকে মূলত হাতির আবাস সেখানে। যেহেতু এ এলাকায় হাতি-মানুষ দ্বন্ধের কারণে প্রতিনিয়ত প্রাণহানিসহ মানুষের বসতবাড়ি ও ফসলের ক্ষতি হচ্ছে সেহেতু এ এলাকার মানুষদের নিয়ে আমরা ইআরটি ( এ্যালিফেন্ট রেসপোন্স টিম) গঠন করবো এবং প্রশিক্ষণ দেবো। এতে হাতি দেখলে মানুষের হাতির ওপর বৈরী মনোভাব কেটে যাবে। ফলে ক্ষয়ক্ষতি কমে আসবে। সভায় উপস্থিত দর্শকদের প্রশ্নোত্তর পর্বের মাধ্যমে শেষ হয় এ কর্মশালা। কর্মশালায় ৩০ জন স্বেচ্ছাসেবক অংশগ্রহণ করেন।

জলদী সহ ব্যবস্থাপনা কমিটির সহ সভাপতি মোঃ হামিদ উল্লাহ’র সভাপতিত্বে ও জলদী অভয়ারণ্য রেঞ্জ কর্মকর্তা ও বাঁশখালী ইকোপার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনিসুজ্জামান শেখ এর সঞ্চালনায় প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বন্যপ্রানী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের চট্টগ্রামের প্রশিক্ষক নুর জাহান মিল্কী ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন বন্য প্রাণী সংরক্ষণ ও জলবায়ু পরিবর্তন কর্মকর্তা দিপান্নীতা ভট্টাচার্য্য।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, পুইঁছুড়ি অভয়ারণ্য রেঞ্জ বিট কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ,জলদী অভয়ারণ্য রেঞ্জ বিট কর্মকর্তা কবির উদ্দীন আহমদ,সাংবাদিক কল্যান বড়ুয়া মুক্তা,জোবাইর চৌধুরী, মুহাম্মদ মিজান বিন তাহের,সৈকত আচার্য্য, হিমেল বড়ুয়া বাপ্পা,শিব্বির আহমদ প্রমুখ।

প্রসঙ্গত বাঁশখালী জলদী বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য রেঞ্জ হাতির আক্রমনে গত বছরে ২ জন ব্যক্তি নিহত হন।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.