BanshkhaliTimes

বাঁশখালীতে লবণচাষী উদ্যোক্তা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কোর্স সম্পন্ন

মুহাম্মদ মিজান বিন তাহের : বাঁশখালী উপজেলায় বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) এর উদ্যোগে উন্নত পদ্ধতিতে সাদা দানাদার ও পরিপক্ব লবণ উৎপাদনে লবণ চাষীদের কে উদ্যােক্তা উন্নয়ন প্রশিক্ষন কোর্স ২০১৮-১৯ সোমবার পর্ব বড়ঘোনা লবণ কেন্দ্র সরল বাজারের বিসিক কার্যালয়ে বাঁশখালী উপজেলা বিসিক কেন্দ্র প্রধান,,, সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) লবণ শিল্প উন্নয়ন কার্যালয়ের কক্সবাজার উপ মহাব্যবস্থাপক ছৈয়দ আহমদ ।
এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সম্পসারণ কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামীম, এসিএ ছৈয়দ আহসান হাবিব,,,বিসিক পূর্ব বড়ঘোনা লবন কেন্দ্র
কেন্দ্র প্রধান কে এম হাসিব আহসান,
ইউপি সদস্য মোঃ সেলিম, সাংবাদিক কল্যান মুক্তা বড়ুয়া, মুহাম্মদ মিজান বিন তাহের প্রমূখ।

BanshkhaliTimes

অনুষ্ঠানে লবণ শিল্পের উন্নয়ন কার্যালয় বিসিক কক্সবাজারের উপ মহাব্যবস্থাপক ছৈয়দ আহমদ বলেন, সনাতন পদ্ধতির চেয়ে সাদা দানাদার ও পরিপক্ক লবণ উৎপাদনের প্রয়োজনীয়তা, অধিক মুনাফা সম্পর্কে ধারণা, আমদানী বিকল্প সাদা দানাদার এবং পরিপক্ক লবণ উৎপাদনে বাজার চাহিদার বিশ্লেষন করে বলেন, সরকার চলতি মৌসুমে দেশে লবণ উৎপাদনে স্বয়ং সম্পুর্ণতা অর্জন করে বিদেশ হতে যাতে লবণ আমদানি করতে না হয় সে লক্ষ্যে ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে ৬০ হাজার একর জমিতে ১৮ লক্ষ মেট্রিক টন পরিশোধিত লবণ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে।
বাংলাদেশ বর্তমান লক্ষমাত্র ১৮ লক্ষ মেক্টিকটন, আমাদের চাহিদা ১৬.৫০ লক্ষ মেক্টিকটন,উৎপাদন হচ্ছে ১২.১৩ লক্ষ মেক্টিকটন,
গতবছরে ছিল ১৪.১০ লক্ষ মেক্টিকটন। আবহাওয়া লবণ উৎপাদনের অনুকুলে থাকলে এ লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সম্ভব দাবী করে তিনি আরো বলেন, কালো লবণ উৎপাদনে লবণ মাঠ ক্ষয়প্রাপ্ত হয় এবং লবণের সাথে মিশ্রিত কাদাদ্বারা মিল এলাকার নদ নদী ক্রমান্নয়ে ভরাট হয়ে যাচ্ছে। যা পরিবেশের উপর মারাত্মক প্রভাব ফেলছে। কাজেই পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার্থে পলিথিন পদ্ধতিতে সাদা দানাদার ও পরিপক্ক লবণ উৎপাদনের মাধ্যমে দেশের লবণের চাহিদা পুরণ করার জন্য উদ্যোক্তা ও চাষীদের প্রতি আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলকে বিসিকের বিশেষ উপহার সামগ্রী ও দুপুরের খাবার দেয়া হয়।

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published.