BanshkhaliTimes

বাঁশখালীতে ভাড়া নিয়ে বাড়াবাড়ির জেরে চলন্ত বাস খাদে ফেলে দিল চালক!

BanshkhaliTimes

বাঁশখালী টাইমস প্রতিবেদক: বাঁশখালীতে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে অন্তত ১০ জন আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলার সাধনপুর চারা বটতল এলাকার প্রধান সড়কে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। আহতরা স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করছেন।

স্থানীয় ও আহত বাস যাত্রী সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে বাঁশখালী থেকে চট্টগ্রাম শহরে যাওয়ার পথে একটি যাত্রী বাহী স্পেশাল বাস (কক্সবাজার -জ-১১-০০২৬) উপজেলার সাধনপুর চারা বটতল এলাকায় পৌঁছলে ছোট্ট বাচ্চার ভাড়া নেওয়া কে কেন্দ্র করে বাস চালক এবং হেলপারের সাথে যাত্রীদের কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ড্রাইভার ইচ্ছাকৃত ভাবে বাসটি খাদে ফেলে পালিয়ে যায়।

এতে গাড়ীতে থাকা ৪৫-৫০ জন যাত্রীদের মধ্যে অন্তত ১২ জন যাত্রী কম বেশি আঘাতপ্রাপ্ত হয়। আহতদের মধ্যে বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৪ জন, গুনাগরি আধুনিক হাসপাতালে ৪ জন, বাঁশখালী মা-শিশু ও জেনারেল হাসপাতালে ৩ জন সহ মোট ১১ জন চিকিৎসা নিয়েছে বলে খবর পাওয়া যায়। আহতদের মধ্যে বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেওয়া আহতরা হলেন, মিনজিরীতলা এলাকার মৃত আব্দুল মজিদের পুত্র দক্ষিন কাথরিয়া বাইলা খলিফা জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আবুল কাশেম (৫৫), নাপোড়া এলাকার শাহ আলমের পুত্র আব্দুল খালেক(৩৬), উঃ জলদী এলাকার মৃত আবুল কাশেমের পুত্র মোঃ কাউচার(৪২), শীলকূপ এলাকার মোস্তাফিজুর রহমানের পুত্র বদিউল আলম। গুনাগরি মা ও শিশু হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহন করেছেন মোঃ নাজিম উদ্দীন (২৭), বৈলছড়ি মাইদার পাড়া এলাকার আহমদ মিয়া চৌধুরীর স্ত্রী নাছিমা আক্তার (৩০),খানখানাবাদ কদম রসুল এলাকার মৃত নুর আহমদের পুত্র শামশুল আলম (৬০), অপর দিকে গুনাগরি আধুনিক হাসপাতাল চিকিৎসা নিলেন, শেখেরখীল এলাকার মৃত কবির আহমদের পুত্র মোঃ রিদুয়ান (৩০), মোস্তাফা আলীর পুত্র রেজাউল করিম(৩৬), মৃত গোলামুর রহমানের পুত্র মাহমুদুল ইসলাম,গুনাগরি এলাকার মৃত গনী চৌধুরী পুত্র নাছিমুল গনী চৌধুরী (৪৯) আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে গুরতর আহত আব্দুল খালেক ও নাজিম উদ্দীনকে চট্টগ্রাম চমেক হাসপাতাল প্রেরণ করা হয়েছে। স্থানীয়রা জানান, দুর্ঘটনার পর পরই ওই বাসের ড্রাইভার ও হেলপাররা কোথায় পালিয়ে যায়।

দুর্ঘটনা কবলিত বাস যাত্রী মিনজিরীতলা এলাকার মৃত আব্দুল মজিদের পুত্র দক্ষিন কাথরিয়া বাইলা খলিফা জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আবুল কাশেম জানান, আমার পাশে অন্য সীটে বসা একযাত্রী ২টি সীট নিলেও তাদের ছোট্ট একটা বাচ্চার ভাড়া খুঁজে বাস হেলপার, ওই বাচ্চার ভাড়া নেওয়াকে কেন্দ্র করে বাস ড্রাইভার- হেলপার ও যাত্রীদের সাথে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ইচ্ছাকৃত ভাবে বাসটি খাদে ফেলে ড্রাইভার লাফ দিয়ে পালিয়ে যায় তাই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। আমি বাস এবং হেলপারদের উপযুক্ত বিচার চাই। ভাগ্য ভাল যে এতে কোন প্রাণহানি ঘটেনি।

বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগে কর্মরত ডাঃ উপসনা বড়ুয়া জনান, বাস দুর্ঘটনায় আহত ৪ জনকে আমার চিকিৎসা প্রদান করেছি, একজনকে চমেকে প্রেরণ করেছি। বাকীরা অন্যান্য প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে শুনেছি।

বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *