BanshkhaliTimes

বাঁশখালীতে টমটম চালককে ছুরিকাঘাত করে পালাতে গিয়ে দুই ছিনতাইকারী আটক

মুহাম্মদ মিজান বিন তাহের, বাঁশখালী: বাঁশখালীতে অটোরিকশা চালককে চুরি দিয়ে জবাই করে টমটম নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার খবর পেলে দ্রুত ঘটনাস্থলের অদূরে দুই ছিনতানকারীকে গ্রেফতার করেছে বাঁশখালী থানা পুলিশের চৌকস একটি টিম। এ ঘটনায় অটোরিকশা উদ্ধার, ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত চুরি সহ দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) রাত দেড়টার দিকে উপজেলার নাপোড়া বাজারের উত্তরে পাশে বাঁশখালী-পেকুয়া প্রধান সড়কের সীমান্ত ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় এ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃত ছিনতাইকারী বাঁশখালী উপজেলার শীলকূপ ইউপির মনকিচর ৫ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার আব্দু শুক্কুরের পুত্র মোস্তাফিজুর রহমান সিকদার (২৬) অপরজন পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়া ইউপির কাদিমা কাটার ৬ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার মনির আহমদের পুত্র মোঃ কায়ছার (২৮)।

এ ঘটনায় গুরুতর জখমপ্রাপ্ত অটোরিকশা চালক বাঁশখালী উপজেলার চাম্বল এলাকার শফিউল আলম (৫৫) কে উদ্ধার করে বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন চট্টগ্রাম চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করে।

স্থানীয় ও পুলিশসূত্রে জানা যায়, ‘অটোরিকশা চালক শফিউলের সাথে ছিনতাইকারী মোস্তাফিজ এর পূর্ব থেকে সম্পর্ক ছিল। ছিনতাইকারী মোস্তাফিজ টমটম চালককে বলেন চাচা আমাকে একটু নাপোড়া বাজার দিয়ে আসেন। সে সুবাদে রাতে তাদের নিয়ে নাপোড়া ব্রীজে পৌছালে চালককে দাঁড়াতে বলেন। তারা চালককে চাবি দিয়ে দিতে বলেন এবং চাবি না দেওয়ায় শুয়ারের বাচ্চা বলে সম্ভোধন করে চাবি কেড়ে নিয়ে গলায় চাকু বসিয়ে জবাই করে অটোরিকশা নিয়ে পালিয়ে যেতে দেখে স্থানীয়রা ৯৯৯ নাম্বারে ফোন দিলে বাঁশখালী থানা পুলিশের ওসি সহ একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌছান।

বাঁশখালী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্তকর্মকর্তা (ওসি) কামাল উদ্দীন জানান, ‘ ঘটনার খবর পেয়ে আমি নিজেই দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছাই। এরা ধান খেতে লুকিয়েছিল। পরে তাদেরকে পুলিশ গ্রেফতার করে চাকুসহ অটোরিকশাটি উদ্ধার করেন।

তিনি আরো বলেন, ‘এই সংক্রান্তে বাঁশখালী থানার মামলা নং-১৫, তারিখ- ১০/৮/২০২২ইং, ধারা- আইন শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ ( দ্রুত বিচার আইন) এর ৪ রুজু করা হয়েছে।’

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published.