BanshkhaliTimes

বর্তমান বিশ্বে নারীরাও কোনও ক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই: মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী

মুহাম্মদ মিজান বিন তাহের: শিক্ষা-বান্ধব পরিবেশ বজায় রাখা এবং শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার গুণগতমান মানোন্নয়নের জন্য চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায় খান বাহাদুর ফাউন্ডেশন কতৃক পরিচালিত বাঁশখালী গার্লস ডিগ্রী কলেজের অভিভাবক সমাবেশ বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) কলেজের অধ্যক্ষ মুহাম্মদ মিসা সিকদারের সভাপতিত্ব অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কলেজের প্রতিষ্টাতা চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও সাংসদ আলহাজ্ব মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডা. ফারুক আহমদ, সাবেক অধ্যক্ষ সূচিত্রা রায়,
অধ্যাপক জমির উদ্দীন চৌধুরী, বাঁশখালী সরকারি আলাওল ডিগ্রী কলেজের অধ্যাপক এস এম আতাউর রহমান, সাংবাদিক সৈকত আচার্য্য, মুহাম্মদ মিজান বিন তাহের, অভিভাবকদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন ইন্দুভূষন রুদ্র, জসীম উদ্দীন, নুরুল বশির, নাসির উদ্দীন, শিক্ষাকদের পক্ষে মো: জসিম উদ্দীন, শাহীন আক্তার, শেখ মাহমুদা আক্তার প্রমূখ।

সঞ্চালনায় ছিলেন কলেজের শিক্ষক গিয়াস উদ্দীন।

অনুষ্ঠানে সাবেক মেয়র ও সাংসদ মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা আপনাদের সন্তানের দিকে খেয়াল রাখবেন, তারা কার সাথে মিশে? কার সাথে চলাফেরা করে? তিনি বলেন, আপনারা খেয়াল করবেন- তারা ঠিক মত লেখাপড়া করে কি না? তিনি আরো বলেন, আপনাদের সন্তানকে মানুষের মত মানুষ করা যেমন আপনাদের দায়ীত্ব তেমন আমাদেরও। ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, তোমরা ভালো করে লেখাপড়া করে সু-শিক্ষায় শিক্ষিত হও। বেশিবেশি বই পড়ে জ্ঞান অর্জন কর
ভালো ফলাফল অর্জনের ক্ষেত্রে নিয়মিত অধ্যায়নের কোন বিকল্প নেই। অভিভাবকদের উচিৎ মেয়েদের খোঁজ খবর রাখা। এবং নিয়মিত কলেজে উপস্থিত হলে প্রাইভেট পড়ার দরকার হবে না। সামনের বছর কলেজের সন্তোষজনক ফলাফল চাই।

ভালো ফলাফলের জন্য ছাত্রী-শিক্ষক-অভিভাবক­ এই ত্রিমুখী প্রচেষ্টার কথা উল্লেখ করে প্রধান অতিথি তার মূল্যবান বক্তব্য পেশ করেন এবং ছাত্রছাত্রীদের ভালোভাবে লেখাপড়ায় মনোযোগ দিতে হবে। সেই সঙ্গে অভিভাবকদের নিজের সন্তানের প্রতি সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর নিতে পরামর্শ দেন।

পরিশেষে তিনি এ সভায় অভিভাবকবৃন্দের মধ্যে থেকে যেসব সূচিন্তিত মতামত, পরামর্শ ও দিক-নির্দেশনা সমূহ এসেছে তা দ্রুত বাস্তবায়ন করে আরো শিক্ষার মানোন্নয়ন করা হবে মর্মে অভিভাবকবৃন্দকে আশ্বস্ত করেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top