নিখোঁজের এক যুগ পার হলেও সন্ধান মেলেনি হাফেজ ছফওয়ানের

Prottasha-Coaching

বাঁশখালী টাইমস: দীর্ঘ এক যুগ পার হলেও সন্ধান মেলেনি হাফেজ মুহাম্মদ ছফওয়ানের। দক্ষিণ চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী সুখ্যাত দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আল জামিয়া আল ইসলামিয়া জলদী মখজনুল উলুম (বাইঙ্গাপাড়া) বাঁশখালী বড় মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন পীরে কামেল মরহুম মাওলানা মোহাম্মদ আলী সাহেবের নাতী, মিশর আল আজাহার বিশ্ববিদ্যালয় ও সৌদিআরব আল বাহা মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র অধ্যাপক ড. মাওলানা শিব্বির আহমদের ছোট ভাই লন্ডন “মসজিদুল আবরার” জামে মসজিদের খতিব, আল জামিয়াতুল আরবিয়া মদিনাতুল উলুম রাউজান দেওয়ানপুর মাদ্রাসার সাবেক মোহতামিম, সিএমবি আল মাদ্রাসাতুল ইসলামিয়া তানজিমুল উম্মাহ মাদ্রাসার সহ অসংখ্য মসজিদ মাদ্রাসার মোহতামিম ও খতিব, জলদী মখজনুল উলুম বাইঙ্গাপাড়া (বাঁশখালী বড় মাদ্রাসার) মতোয়াল্লী মরহুম আলহাজ্ব হযরত মাওলানা আবু তাহের সাহেবের তৃতীয় পুত্র সাংবাদিক মুহাম্মদ মিজান বিন তাহেরের ছোট ভাই হাফেজ মুহাম্মদ ছফওয়ান ২০০৮ সালের (১০ অক্টোবর) নিঁখোজ হয়ে যায়। সেসময় তার বয়স ছিল ১০ বছর। নিখোঁজের ১২ বছর গড়িয়ে গেলেও ছফওয়ানের সন্ধান পায়নি তার পরিবার।

হাফেজ মু. ছফওয়ানের মেঝ ভাই বাঁশখালীতে কর্মরত দৈনিক মানবকন্ঠ ও দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকার বাঁশখালী প্রতিনিধি তরুন সাংবাদিক মুহাম্মদ মিজান বিন তাহের জানান- ‘ছোট ভাই হারিয়ে যাওয়ার পর থেকে আজবধি তার কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি।’ ২০০৮ সালের ১৩ অক্টোবর বাঁশখালী থানায় আমার মরহুম পিতা নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে বাঁশখালী থানায় সাধারণ জিডি নং- ৪৬৫ দায়ের করেন এবং বিভিন্ন প্রশাসনিক দপ্তরে অভিযোগ করেন।

কোন সুহৃদ ব্যক্তিবর্গ আমার ভাই হাফেজ মুহাম্মদ ছফওয়ানের সন্ধান পেয়ে থাকেন তাহলে উক্ত নাম্বারে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ রইল।

Prottasha-Coaching

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.