জেনে নিন দাদা, গুণবতী আদা

জেনে নিন দাদা, গুণবতী আদা
বিটিডেস্ক :
মানুষেরা বলতে গেলে আদাকে শুধু একটি মশলা হিসেবে দেখে। অনেকে হয়ত জানে যে, বিভিন্ন চিকিৎসায় আদা কার্যকরী কিন্তু বেশিরভাগ মানুষই জানে না চুলের বৃদ্ধি বা চুল পড়া বন্ধ করতে আদা খুব উপকারী।

মাথার তালুতে নিয়মিত আদার রস ব্যবহার করলে মাথার ত্বকে রক্ত প্রবাহ বৃদ্ধি পায় এবং চুলের বৃদ্ধি ঘটে।

আয়ুর্বেদিক চিকিৎসাশাস্ত্রে শত শত বছর ধরে চুলের চিকিৎসায় আদা ব্যবহৃত হয়ে আসছে। আয়ুর্বেদিক চিকিৎসায় আরেকটি খুব সাধারণ ব্যবহার হচ্ছে খুশকি নিয়ন্ত্রণে আদার ব্যবহার।

চুলের উপকারীতায় আদার মূল

চুল পড়া বন্ধ করতে আদার মূল খুব কার্যকরী। আদার মূলের রস চুল শক্ত করে এবং মাথার দুর্গন্ধ দূর করে।
নারী, পুরুষ উভয়ের জন্যই খুশকি খুব কমন একটা সমস্যা। আদার রস খুশকি দূর করতে সাহায্য করে। আদার রস অলিভ অয়েলের সাথে মিশিয়ে মাথার তালুতে লাগান, এবং এভাবে এক রাত রেখে দিন। এতে খুব ভালো উপকার পাওয়া যায়।
আদার রস জোজোবা অয়েল বা ঘৃতকুমারীর তেলের সাথে মিশিয়ে ব্যবহারে দারুণ উপকার পাওয়া যায়। এতে চুলের বৃদ্ধি ঘটে।

আপনার চুল যদি বেশি শুষ্ক থাকে তাহলে চুলে আদার রস ব্যবহার করলে আপনার চুলের রুক্ষতা দূর হয় এবং উজ্জ্বলতা ফিরে আসে।

যেভাবে চুলের বৃদ্ধি ঘটাবেন:

আদা মাথার ত্বকে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে। মাথার ত্বকে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পেলে চুলের গ্রন্থি উত্তেজিত হয় এবং চুলের বৃদ্ধি ঘটে। আদায় থাকা ফ্যাটি এসিড পাতলা চুলের জন্য খুব কাজে দেয়। চুল পড়া বন্ধ করতে নিচের এই রেসিপিটি ব্যবহার করুন, উপকার পাবেন।

এক টেবিল চামচ আদার মূল বেটে ছোট একটা বাটিতে নিন। এতে এক টেবিল চামচ জোজোবা অয়েল অথবা অলিভ অয়েল যোগ করে ভালোভাবে মিশান। এবার এই মিশ্রণটি ধীরে ধীরে মাসাজ করতে করতে আপনার মাথার ত্বকে লাগান। আধা ঘণ্টার বেশি সময় এভাবে রেখে দিন। আপনার মাথার ত্বকে কিছুটা উষ্ণ বোধ হবে। এরপরে শ্যাম্পু করে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
৬ আউন্স পরিমাণ আদা ভালো করে খোসা ছাড়িয়ে নিন। এবার এটাকে এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ পানি দিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করুন। ভালোভাবে মিশ্রণ তৈরি না হওয়া পর্যন্ত ব্লেন্ড করুন। একটি বাটির উপরে এক টুকরা সুতি কাপড় নিয়ে তাতে মিশ্রণটি ঢালুন। এবার কাপড়টিকে কিনারের দিক থেকে গুটিয়ে এনে ভাজ করে ফেলুন। কাপড়ে খুব শক্ত করে চাপ দিন যাতে যতটা সম্ভব আদার রস নিংড়ে নিচের বাটিতে পড়ে। এই রস মাথার তালুতে লাগান। লাগিয়ে ৫ থেকে ১০ মিনিট রেখে দিন, এরপর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।
(সাম্প্রতিক)

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *