কয়লা বিদ্যুতে কর্মরত বিদেশী নাগরিকের গাড়িতে হামলা, আটক ২, আহত ৩

মুহাম্মদ মিজান বিন তাহের, বাঁশখালী টাইমস: বেসরকারি পর্যায়ে দেশের সর্ববৃহৎ চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার গন্ডামারা এলাকায় স্হাপিত বহুল আলোচিত ১৩২০ মেগাওয়াট কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পে কর্মরত চীনা নাগরিকরা প্রকল্প হতে ফেরা পথে গন্ডামারা ইউনিয়নের পশ্চিম বড়ঘোনা আলকদিয়া প্রকল্পের অস্হায়ী রাস্তায় আজ সোমবার (২২ অক্টোবর) রাত ৮.৩০ মিনিটের সময় এক ডাকাতদল তাদের গাড়ি আটকিয়ে ২ টি গাড়ি ভাংচুর চালায়। পরে চাইনিজদের গাড়ি আটকানোর খবর পেয়ে বাঁশখালী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছলে ডাকাতদল পুলিশকে লক্ষ করে গুলি চালিয়ে পালানোর সময় ২ ডাকাত কে আটক করে। পরবর্তীতে ২ ডাকাতকে নিয়ে ফেরার পথে পুনরাই আবারো পুলিশে লক্ষে ডাকাতদল ছোড়া গুলি চালালে
এতে বাঁশখালী থানার পুলিশ আশিক (২০),ইসমাঈল (২৮) এবং এস.এস.পাওয়ার প্যাল্টের কর্মরত ড্রাম্প ট্রাকের ড্রাইবার আইয়ুব (৩০) গুরুত্বর আহত হয়।
আহতদের কে বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎকসা দেওয়া হয়।খবর পেয়ে আহদের দেখতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা বেগম,সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) আনোয়ারা- বাঁশখালী মফিজ উদ্দীনন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য প্রকাশ আনছার উল্লাহ ডাকাতের পুত্র সাহাদত ডাকাত(২০) এবং আমিন উল্লাহ ডাকাতের পুত্র খালেদ (২০) কে আটক করেছে বাঁশখালী থানা পুলিশ।

এস.এস.পাওয়ার প্যাল্টের প্রকল্পে কর্মরত বাংলাদেশ নৌবাহিনীর প্যাটে অফিসার মোঃ জহিরুল ইসলাম জানান,প্রকল্প থেকে পশ্চিম বড়ঘোনা আলকদিয়া হয়ে চীনা নাগরিকেরা প্রকল্পের অস্থায়ী রাস্তা দিয়ে ফিরার পথে গন্ডামারা বড়ঘোনা এলাকার বহু মামলার আসামী কুখ্যাত আনছার ডাকাত এবং আমিন ডাকাতের নেতৃত্বে রাত ৮.৩০ মিনিটের সময় প্রকল্পে কর্মরত চাইনিজদের একটি গাড়ি আক্রমন করে ডাকাতির উদ্দেশ্যে এবং দুইটি গাড়ি ভাংচুর করে। পরে বাঁশখালী থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছলে ডাকাত দল তাদের লক্ষ করে গুলি চালায়।এতে পুলিশের ২ সদস্য এবং প্রকল্পে কর্মরত ড্রাম ট্রাকের ডাইভার আহত হয়।পরবর্তীতে ২ ডাকাতকে নিয়ে পুলিশ আটক করে নিয়ে আসার পথে আবারো ডাকাতেরা পুলিশকে লক্ষ করে গুলি চালালে এক ডাকাত গুরত্বর আহত হয়।

সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) আনোয়ারা- বাঁশখালী মফিজ উদ্দীন বলেন,খবর পেয়ে আমি নিজে আনোয়ারা থেকে ছুটে এসেছি।কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পের কর্মরত চীনা নাগরিকদের ডাকাতির চেষ্টা এবং পুলিশদের উপর হামলা কারী আনছার ডাকাত এবং আমিন উল্লাহ ডাকাত কে ধরতে পুলিশ অভিযান অব্যাহত আছে। ইতি পূর্বে ঘটনাস্থলে বাঁশখালী থানার ওসি এবং পুলিশ ফোর্স রয়েছে। শীগ্রই পুলিশের উপর হামলাকারী ডাকাতদের গ্রেফতার পূর্বক আইনের আওতায় আনা হবে।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.