আলোচনার জন্য ঢাকায় আসবে মিয়ানমার

বাঁশখালী টাইমস ডেস্ক: মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সহিংসতার জেরে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে আলোচনা করতে ঢাকা আসতে সম্মত হয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ইউনিয়ন মিনিস্টার (পররাষ্ট্রমন্ত্রী) এইচ ই দাউ অং সান সু চি।

তিনি জানান, বাংলাদেশ তাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল। তিনি রাজি হয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাতিসংঘের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ঢাকায় ফিরে এলেই তারিখ ঠিক করা হবে।

আশা করা হচ্ছে, সামনে মাসের শুরুতেই এই আলোচনার দিনক্ষণ চূড়ান্ত হবে।

মিয়ানমারে নিয়োজিত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ শফিউর রহমান রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে ব্যাপক সহিংসতা ও চলমান সেনা অভিযানের পর বারবার দেশটির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দেখা চাইলেও তা পাননি। শেষ পর্যন্ত তিনি এ বিষয়ে বাংলাদেশের অবস্থান দেশটির সরকারকে সরাসরি জানান।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র গত ১২ সেপ্টেম্বর জানায়, বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ শফিউর রহমান ১১ সেপ্টেম্বর দেশটির রাজাধানী নেপিডোয় স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চির কার্যলয়ে সাক্ষাৎ করেন এবং দেশটির পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী উ কিয়াও থিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বাংলাদেশের অবস্থান তুলে ধরেন। তারপরে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সে দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ঢাকায় আমন্ত্রণ জানালে তাদের মন্ত্রী তা গ্রহণ করেছেন। সামনে মাসের শেষে তিনি ঢাকা সফর করতে পারেন।

এদিকে রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ছয় দফা প্রস্তাব তুলে ধরেছেন। আন্তর্জাতিকভাবেও চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পসহ বিভিন্ন দেশের নেতারা ইতোমধ্যে এ বিষয়ে কথা বলেছেন।

জাতিসংঘ এবং আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইএমও) বলছে, সহিংসতার শিকার হয়ে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা প্রায় সাড়ে চার লাখ। তবে বেসরকারি হিসেবে এই সংখ্যা সাড়ে পাঁচ লাখ ছাড়িয়েছে। সহিংসতায় প্রাণ গেছে তিন হাজারের বেশি মানুষের। বেসরকারিভাবে এই সংখ্যা দশ হাজার পার করেছে মধ্য সেপ্টেম্বরেই।

Prottasha-Coaching

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.